Type Here to Get Search Results !

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সেপ্টেম্বরে খুলে না দিলে আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে:ভিপি নুর

0
- নিজস্ব প্রতিবেদক 

করোনা সংক্রমণের কারণে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো আগামী সেপ্টেম্বর(২০২১) থেকে   খুলে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর। তিনি বলেছেন, "সেপ্টেম্বরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা না হলে আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে।"

আজ শুক্রবার (১৩ আগস্ট) বিকালে(৩ টায়) কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে 'ভাসানী অনুসারী পরিষদ' আয়োজিত  সবার জন্য টিকা, নিম্নআয়ের মানুষের জন্য রেশনিং এবং জনজীবন সচল রাখার ৩ দফা দাবিতে আয়োজিত নাগরিক সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

উক্ত সমাবেশে নুরুল হক নুর বলেন, "দেশের সবকিছু খুলে দেওয়া হয়েছে, শুধু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বাদে। তাই আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে। নইলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে সেপ্টেম্বরে আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে। আর এ আন্দোলনে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অভিভাবকদেরও অংশগ্রহণ করতে হবে।"

তিনি আরও বলেন, "বিশ্বের কোনো দেশেই এতো দীর্ঘ সময় ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ নেই। বাংলাদেশ ১৫ মাস ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। আজকে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা ছাড়াই অটোপাস দেওয়া হচ্ছে। এই অটোপাস মূলত তাদের ধ্বংস ডেকে আনছে।"

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার রোডম্যাপ ঘোষণার দাবি করে  ভিপি নুর  বলেন, "দ্রুত সব শিক্ষার্থীদের টিকার ব্যবস্থা করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিন। এই সরকার আসলে টালবাহানা করে সময় কাটাতে চায়, শিক্ষা ব্যবস্থাকে ধ্বংস হচ্ছে সেদিকে কোনো মনোযোগ নাই। এখন পর্যন্ত অসংখ্যবার ডেট দিয়েও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে পারেনি কিংবা কোনো রোডম্যাপ দিতে পারেনি সরকার। "

তিনি বলেন, "দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় চাকরির বাজারে প্রভাব পড়বে। শিক্ষার্থীদের এ ক্ষতি থেকে বাঁচাতে হলে, দেশকে বাঁচাতে হলে সবাইকে রাজপথে নামতে হবে। এই সরকার চাচ্ছে কোনোরকম পাঁচ বছর কাটিয়ে দিতে, তারা নিজেও জানে না তারা কখন বিপদের মধ্যে পড়ে যায়।"

নুর আরও বলেন, "এই নাগরিক সমাবেশ থেকে দাবি জানাতে চাই, আগামী সেপ্টেম্বর থেকে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে। খুলে না দিলে আমরা শিক্ষার্থীদের নিয়ে গণআন্দোলনের ডাক দেব।"

উক্ত সমাবেশে ভিপি নূরের পাশাপাশি অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডাকসুর সাবেক ভিপি মাহমুদুর রহমান মান্না, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি বীর মুক্তিযোদ্ধা জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ প্রমুখ।

Post a Comment

0 Comments

Top Post Ad

Below Post Ad